Home / খেলাধুলা / দলবদল শেষ হলো: বার্সায় কারা এলেন-গেলেন?

দলবদল শেষ হলো: বার্সায় কারা এলেন-গেলেন?

গ্রীষ্মকালীন দলবদলই আসল দলবদল। এ সময়ই ক্লাবগুলো খেলোয়াড় কেনা-বেচা করে। অনেক দলই পায় নতুন চেহারা। গতকাল ছিল দলবদলের শেষ দিন। ১ সেপ্টেম্বর তাই অনেকের আগ্রহ থাকে প্রিয় দলে কে এল আর কে চলে গেল। প্রথম পর্বে আজ জেনে নিন বার্সেলোনার খবর—78f8ee0319059215642fe3368a72ba16-barcelona

গত মৌসুমে লুইস এনরিকেকে যে প্রশ্নটা সম্ভবত সবচেয়ে বেশি শুনতে হয়েছে, তা হলো, মেসি-সুয়ারেজ-নেইমারের একসঙ্গে দুজন চোটে পড়ে গেলে বা নিষেধাজ্ঞা পেলে কী করবে বার্সেলোনা? এই তিনজনের বিকল্প কে?
অনেকের মতে, চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালেই বার্সার বাদ পড়ার পেছনে কিংবা এপ্রিলে হঠাৎ করেই ফর্মে কিছুটা পতন আসার বড় কারণ ‘এমএসএনে’র টানা খেলার ধকল।
এবার তাই এনরিকের মূল পরিকল্পনাই ছিল, এই তিনজনের বিকল্প হিসেবে একজনকে আনা। বেঞ্চে বসেই খুশি থাকবে, কিন্তু প্রয়োজনে কম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলোতে কিংবা অন্যান্য ম্যাচের শেষ দিকে ‘ত্রিরত্নে’র কোনো একজনের বদলি হিসেবে নেমে গোল করতে পারবে এমন একজন। অনেক নাটকের পর শেষ পর্যন্ত এমন একজনকে খুঁজে পেল বার্সেলোনা—পাকো আলকাসার। ভ্যালেন্সিয়া থেকে ৩০ মিলিয়ন পাউন্ড দিয়ে ২৩ বছর বয়সী এই স্প্যানিশ স্ট্রাইকারকে দলে এনেছে বার্সা।
অবশ্য তার আগের নাটকটা বার্সার জন্য ছিল এমন—‘যেখানে যাহাকে জড়ায়ে ধরেছি, সেই চলে গেছে ছাড়ি।’ লুসিয়ানো ভিয়েত্তো, কেভিন গামেইরো, মারিও গোমেজ…যাঁর প্রতিই বার্সেলোনার আগ্রহের কথা শোনা গেছে, তিনিই অন্য কোনো ক্লাবে যোগ দিয়ে ফেলেছেন। আলকাসারকে আনতেও কত নাটক। ভ্যালেন্সিয়া প্রথমে ছাড়তে চায়নি। পরে ছেড়েছে, তবে চুক্তির অংশ হিসেবে ফরোয়ার্ড মুনির এল হাদ্দাদিকে এক মৌসুমের জন্য ভ্যালেন্সিয়ার কাছে ধারে দিতে হয়েছে বার্সাকে।
দলবদলে অবশ্য শুধু স্ট্রাইকার নয়, মিডফিল্ড, ডিফেন্স, গোলকিপার—প্রতিটি অংশেই নতুন খেলোয়াড় এনেছে বার্সা। এ ক্ষেত্রে ‘তারুণ্য’ নীতিই বেছে নিয়েছে এনরিকের দল। ইনিয়েস্তা, রাকিতিচ, আরদা তুরানদের ‘বুড়ো’ মিডফিল্ডে তারুণ্যের ছোঁয়া দিতে ভিয়ারিয়াল থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে ২২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার ডেনিস সুয়ারেজকে। ভ্যালেন্সিয়া থেকে ৩৫ মিলিয়ন পাউন্ড দিয়ে (যা কিনা বেড়ে ৫৫ মিলিয়ন পর্যন্তও যেতে পারে) আনা হয়েছে পর্তুগিজ মিডফিল্ডার আন্দ্রে গোমেজকে। তাঁরও বয়স ২২।
ডিফেন্সে নতুন দুজন এসেছেন, দুজনই ফ্রেঞ্চ। অলিম্পিক লিঁও থেকে এসেছেন ২২ বছর বয়সী সেন্টার ব্যাক স্যামুয়েল উমতিতি, প্যারিস সেন্ট জার্মেই থেকে (গত মৌসুমে ধারে রোমায় খেলেছেন) ২২ বছর বয়সী লেফট ব্যাক লুকাস দিনিয়ে। গোলকিপার কিনতে অবশ্যই এক রকম বাধ্যই হয়েছে বার্সেলোনা। নতুন চ্যালেঞ্জের আশায় চিলিয়ান গোলকিপার ক্লদিও ব্রাভো গেছেন ম্যানচেস্টার সিটি, তাঁর শূন্যতা পূরণে আয়াক্স থেকে ইয়াসপার সিলেসেনকে নিয়ে এসেছেন এনরিকে।
ছেড়ে যাওয়াদের মধ্যে সবচেয়ে বড় নাম অবশ্যই দানি আলভেস। চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় ‘বিনা মূল্যে’ জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ৩৩ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান রাইট ব্যাক। এর বাইরে ক্লাব ছেড়ে গেছেন আরও ১২ জন। কেউ স্থায়ীভাবে, কেউ ধারে। ব্রাভো, মুনিরের কথা তো বলাই হলো, এর বাইরে স্থায়ীভাবে ক্লাব ছেড়ে গেছেন মার্ক বার্ত্রা (বরুসিয়া ডর্টমুন্ড), অ্যালেন হ্যালিলোভিচ (হামবুর্গ), আদ্রিয়ানো (বেসিকতাস), মার্টিন মনতোয়া (ভ্যালেন্সিয়া), সান্দ্রো রামিরেজ (মালাগা) ও অ্যালেক্স সং (রুবিন কাজান)। এক মৌসুমের জন্য ধারে অন্য ক্লাবে গেছেন—ক্রিস্টিয়ান তেয়ো (ফিওরেন্টিনা), ডগলাস (স্পোর্টিং গিজন), থমাস ভারমেলেন (এএস রোমা), সার্জি সাম্পার (গ্রানাডা)।

এক নজরে:
এলেন: ইয়াসপার সিলেসেন, স্যামুয়েল উমতিতি, লুকাস দিনিয়ে, আন্দ্রে গোমেজ, ডেনিস সুয়ারেজ, পাকো আলকাসার।
গেলেন: ক্লদিও ব্রাভো, দানি আলভেজ, মার্ক বার্ত্রা, থমাস ভারমেলেন, আদ্রিয়ানো, মার্টিন মনতোয়া, ডগলাস, সার্জি সাম্পার, অ্যালেক্স সং, অ্যালেন হ্যালিলোভিচ, ক্রিস্টিয়ানো তেয়ো, সান্দ্রো রামিরেজ, মুনির এল হাদ্দাদি।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *