Breaking News
Home / মোবাইল টিপস / আইফোন সেভেনে চার্জ লাগবে না কখনোই?

আইফোন সেভেনে চার্জ লাগবে না কখনোই?

iPhone-7-pictures

আইফোন সেভেনের স্পর্শকাতর পর্দার নিচে লুকানো থাকবে সৌরকোষ। এর ফলে দিনের বেলায় চার্জ হবে স্মার্টফোনের ব্যাটারি। বৈদ্যুতিক সংযোগের চার্জ ছাড়াই দীর্ঘদিন চালু থাকবে আইফোন। ছবি : সিডনি মর্নিং হেরাল্ড

আইফোনের নতুন সংস্করণ নিয়ে আসে অত্যাধুনিক সব প্রযুক্তি। এই ধারা অব্যাহত থাকছে আইফোন সেভেনেও। আইফোনের এই সংস্করণে সৌরকোষ (সোলার প্যানেল) যুক্ত করবে অ্যাপল। এর ফলে সূর্যের আলোতে তৈরি বিদ্যুতেই স্মার্টফোন চলবে। এ কারণে বিদ্যুৎ সংযোগে চার্জ দেওয়া ছাড়াও ফোন চলবে দীর্ঘদিন।

অ্যাপলের পরিকল্পনায় স্মার্টফোনের ওপরের বাড়তি অংশসহ টাচক্রিনের নিচেও কৌশলে সৌর কোষ বসানোর কথা বলা হয়েছে। এই প্রযুক্তি নিয়ে এরই মধ্যে একটি স্বত্বের (পেটেন্ট) নিবন্ধন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। যুক্তরাষ্ট্রে করা ওই পেটেন্টে বলা হয়, ম্যাকবুকের ট্রাকপ্যাড, আইফোন, আইপ্যাড ও অ্যাপল ওয়াচের মতো প্রযুক্তির স্পর্শে কাজ করে এমন ডিসপ্লের মধ্যে লুকানো অবস্থায় থাকবে সৌরকোষ। পেটেন্টে আরো বলা হয়, ডিসপ্লেতে লুকানো সৌরকোষের মাধ্যমে দিনের বেলায় যন্ত্রের ব্যাটারি (বিদ্যুৎ কোষ) চার্জ হবে।

তবে, টাচক্রিনের সৌরকোষ কীভাবে লুকিয়ে রাখা হবে এবং এটি কীভাবে কাজ করবে এই বিষয়ে পেটেন্টে বিস্তারিত কিছু জানায়নি অ্যাপল। তবে এমন প্রযুক্তি হলে স্বল্প ব্যাটারি সমস্যায় থাকা স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সবচেয়ে উপকৃত হতো।

অ্যাপলের পেটেন্টে আরো বলা হয়, প্রতিষ্ঠানটির ডেস্কটপ কম্পিউটারের মাউস ট্রাক প্যাড, কি-বোর্ডসহ ব্যাটারিনির্ভর বিভিন্ন যন্ত্রাংশে সৌরকোষ ব্যবহার করা হতে পারে।

এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ছোট যন্ত্রপাতিতে সৌরকোষে বসানোর বিষয়টি নতুন নয়। দীর্ঘদিন ধরেই হাতঘড়িতেও সৌরকোষ বসানো হয়। সৌরকোষ থাকা হাতঘড়ির ব্যাটারি কয়েক দশক পর্যন্ত কাজ করে।

চলতি সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে অ্যাপল পে সিস্টেম চালুর ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের পেটেন্টকৃত প্রযুক্তি সম্পর্কে বলেন, তারহীন যন্ত্রে স্পর্শ শনাক্তকরণ প্রযুক্তি ও সৌরকোষ থাকবে, যা আলো থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করবে।

আবার স্পর্শ শনাক্তকরণ প্রযুক্তি কাজ করবে সৌরকোষে উৎপাদিত বিদ্যুৎশক্তিতে। তবে চাইলে বৈদ্যুতিক সংযোগ থেকেও স্মার্টফোনের ব্যাটারি চার্জ দেওয়া যাবে। আর সৌরশক্তিতে স্মার্টফোনের ব্যাটারি চার্জের ব্যবস্থা বর্তমানে মাত্র একদিন চলা আইফোনের ব্যাটারির ক্ষমতা বাড়াবে।

নতুন উদ্ভাবিত প্রতিটি প্রযুক্তিই পেটেন্ট করে অ্যাপল। তবে অনেক ক্ষেত্রেই এর কোনো মূল্য থাকে না। কারণ অ্যাপলের গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগ থেকে পেটেন্ট করা অনেক প্রযুক্তিই শেষ পর্যন্ত বাজারে আসে না।

অনেকদিন ধরেই গুজব শোনা যাচ্ছিল, আইফোন থেকে হোম বাটন ও টাচ আইডি সরিয়ে নেওয়া হতে পারে। হোম বাটনের পরিবর্তে আসতে পারে চাপে কাজ করে এমন কোনো বাটন। আইফোনের নকশায় বড় পরিবর্তন আনা হলে তা সৌর কোষ প্রযুক্তি স্থাপনে অ্যাপলকে সুযোগ তৈরি করে দেবে।

তবে আইফোনপ্রেমীদের জন্য ব্যাটারি নিয়ে চিন্তা থেকে মুক্তির জন্য আইফোন সেভেন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। বাজারে আসার অপেক্ষায় থাকা আইফোন সিক্স এসেই থাকছে দীর্ঘস্থায়ী ও বড় ব্যাটারি। এ ছাড়া পুরোনো স্মার্টফোনগুলোর ব্যাটারিকে দীর্ঘস্থায়ী করতে অপারেটিং সফটওয়্যারের হালনাগাদ সংস্করণ এনেছে অ্যাপল।

অ্যাপলের গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগ জানিয়েছে, হালনাগাদ অ্যাপলের অপারেটিং সফটওয়্যার আইওএস নাইন স্মার্টফোনে আপডেট করা হলে পুরোনো আইফোনের ব্যাটারি এক ঘণ্টা বাড়তি সময় চলবে। বর্তমানে এই সংস্করণের বেটা ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে। শিগগিরই পুরো সংরস্করণটি পাওয়া যাবে।

উৎসঃ   ntv

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *