Home / মুন্সিগঞ্জের খবর / শ্রীনগর উপজেলা / একই পরিবারের ৩ জনের বিষপানে মৃত্যু

একই পরিবারের ৩ জনের বিষপানে মৃত্যু

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগর উপজেলার বাড়ৈখালী ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামে একই পরিবারের ৩ জনের বিষপানে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। জানা-যায়, উপজেলার শ্রীধরপুর গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে মাছ ব্যবসায়ী মোমীন (৫০) এর সাথে নরসিংদি এলাকার পারভীনের বিবাহ হয়। প্রথম স্ত্রী পারভীনের গর্ভে প্রতিবন্ধি স্বর্ণা আক্তার (১৪) ও সানজিদা(৯) নামে দুটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। প্রথম স্ত্রী ও কন্যা সন্তান থাকা সত্বেও মোমীন পাশ^বর্তি মদন খালী গ্রামের সদু মাঝির মেয়ে লুবনা আক্তার (২৮) এর সাথে প্রায় ৯ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। মোমীন দিত্বীয় বিবাহ করার কারনে প্রথম স্ত্রী পারভীন তার দুই সন্তান রেখে বাবার বাড়ি নরসিংদিতে চলে যায়। এর পর থেকে দিত্বীয় স্ত্রী লুবনাই সানজিদাকে মায়ের ভালোবাসা দিয়ে লালন পালন করতে থাকে। সানজিদাও লুবনাকে ছারা অন্যকাউকে আপন বলে ভাবতে পারেননি। জনাগেছে, অন্যকারো সাথে লুবনার পরকিয়ার সম্পর্ক রয়েছে এ নিয়ে তাদের স্বামী মোমীন ও স্ত্রী লুবনা উভয়ে মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে ঝগড়া হয়ে আসছিল। মোবাইলে অন্য করো সাথে পরকিয়া প্রেম-আলাপের কথা বলার সন্দেহকে কেন্দ্র করে গত ২৫ অক্টোবর বুধবার রাতে তাদের স্বামী-স্ত্রী মধ্যে ঝগড়া হয়। পরদিন স্ত্রী লুবনা রাগ করে তার বাবার বাড়ি চলে যায়। ২৯ অক্টোবর রবিবার লুবনা তার স্বামী মোমীনের কাছে একটি তালাক নামা পাঠিয়ে দেন। মোমীন তালাক প্রাপ্ত কাগজ পাওয়ার পর হতে স্ত্রী লুবনাকে পুনরায় ফিরে পাওয়ার আসায় স্থানীয় ইউপিচেয়ার ম্যান,মেম্বারসহ বিভিন্ন গন্য মান্য ব্যক্তিদের দারস্থ হতে থাকেন। এক পর্যায়ে ইউপি চেয়ার ম্যান ও স্থানীয় গন্য-মান্যব্যক্তিবর্গ পুনরায় গত ১ লা নভেম্বর সালিশ করে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মিমাংশা করে দেন। ঐ দিনই মোমীন তার স্ত্রী লুবনা ও তাদের মেয়ে সানজিদাকে নিয়ে নিজ বাড়িতে উঠতে গেলে, বাড়ির লোক জন বকা-বাজি ও তাদের বাড়িতে উঠতে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে অভিমান করে গত কাল রাত আনুমানিক ৭ টার দিকে নির্জন কলাবাগান নামক এলাকায় যেয়ে স্বামী,¯ী¿ ও তাদের মেয়ে সানজিদা কিটনাশক পান করেন। লুবনার মা নেহানা বেগম জানায়, বয়স কম থাকার কারনে বিষের তিব্রতায় প্রথমে সানজিদা ও পরবর্তিতে আমার মেয়ে লুবনা ও মেয়ে জামাই মোমীন মৃত্যু বরন করেন। বাড়ৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম তালুকদার বলেন, ঘটনাটি জানার সাথে সাথে আমি শ্রীনগর থানাকে অবহিত করি। এ ব্যাপারে ২/১১/২০১৭ ইং তারিখে মৃত মোমীনের ছোট ভাই দিল-মোহাম্মদ বাদী হয়ে শ্রীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যাহার মামলা নং -২৭। এ বিষয়ে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম আলমগীর হোসেন জানায়, লাশ ৩টি মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং একটি অপমৃত মামলা হয়েছে।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *